এ যেন বেদনার এক দুঃসহ দিন

এ যেন বেদনার এক দুঃসহ দিন

এ যেন বেদনার এক দুঃসহ দিন

অন্তহীন বেদনায়, মৃত্যুর আহাজারি, ভিন্ন ভিন্ন বেশে এমনও দিন হয়। মৃত্যুর ঢেউয়ে কাতর হয়ে পড়ে সময়। তেমনই স্বজন হারানো মনভাঙা হাহাকারের সেই কালোদিন, ২৯ জুন।
করোনা দু'সংবাদকে ফিকে করে দিচ্ছে আনন্দের রং। সেই নিরানন্দের শ্রাবণে ২৯ জুন যেন বিষাদের ঝড়। সতর্ক জীবন-যাপনের ফাঁকে আজ ক্ষণিকের জন্য বিষাদের ধুলোর স্পর্শ লাগেনি ৫৬ হাজার বর্গমাইলে এমন কাউকে কী পাওয়া যাবে! দিনমান একের পর পর মৃত্যুর ঢেউ আছড়ে পড়েছে সীমিত জীবন-যাপনের পটে। বিশিষ্টজন থেকে অতি সাধারণ- কোথায় ছিল না আজ মৃত্যু!
২৯ জুন যেন মৃত্যু বড় মিছিলে সমারোহ করে বসেছিল সদরঘাটে। সকাল ৯টার কিছু পরে সেখানে ঢাকা-চাঁদপুর রুটের ময়ূর-২ নামের একটি লঞ্চের ধাক্কায় কমপক্ষে ৫০ যাত্রী নিয়ে ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ রুটের মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়। রাত ১০টা পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী ৩২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
স্বজনদের নোনাজলের ভার আজ বুড়িগঙ্গার প্রকৃতিকেও কী অস্বস্তিতে ফেলেনি! টেলিভিশন ও অনলাইন নিউজ পোর্টালে চোখ রাখলেই আহাজারি আর লাশের ছবি।
canvasnews24/সা আ 

0/Post a Comment/Comments

নবীনতর পূর্বতন